সম্পর্কের জন্য কি সুস্থ সেক্স টয়? যা জানা জরুরি

করোনার পর বিক্রি বেড়েছে সেক্স টয়ের? এই নতুন খেলনাতেই এখন মজে বিশ্ববাসী!

গত এক দশকে বিশ্ব জুড়েই জনপ্রিয় হয়েছে সেক্স টয়। যৌন উত্তেজনা আরও বেশি দীর্ঘস্থায়ী করতে কদর বেড়েছে এই সব সেক্সটয়ের। শুধু তাই নয়, লকডাউনে বেড়েছে সেক্স টয়ের চাহিদাও। তবে এই সেক্স টয় নিয়ে কিন্তু এখনও অনেকের নাক উঁচু আছে। অনেকেই ভাবেন সেক্সের আবার খেলনা কী!সম্প্রতি এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ভারতীয় মহিলাদের সেক্স টয় কেনার প্রবণতা বাড়ছে। আর লকডাউন পরবর্তী জীবনে সেক্স টয় কেনার প্রবণতা বেড়েছে প্রায় ৬৫%। তাহলে কি করোনায় সঙ্গমের ভয় এড়াতেই এই খেলনার প্রতি ঝোঁক বেড়েছে মেয়েদের?

করোনার বাজারে বিক্রি বেড়েছে সেক্স টয়ের। আর ক্রেতাদের মধ্যে সংখ্যায় এগিয়ে মেয়েরাই। মুম্বই, হায়দরাবাদ, বেঙ্গালুরু, পাঞ্জাব, দিল্লি, চেন্নাই— প্রধানত এইসব শহরগুলিতে বাড়ছে সেক্সটয়ের বাজার দর। ফিঙ্গার ভাইব্রেটার থেকে থ্রাস্টিং ডিল্ডোস সবই কিনছেন তাঁরা। অনেকেই করোনার পর পার্নারের সঙ্গে যৌনসঙ্গমে ভয় পাচ্ছেন। আর সেখান থেকেই এসব বেছে নিচ্ছেন তাঁরা।

সেক্স নিয়ে মেয়েরা সরব

একটা সময় ছিল যখন মেয়েরা সেক্স নিয়ে কথা বলতে ভয় পেতেন। এমনকী লোকেও নানা কথা বলত। কিন্তু মেয়েরা এখন নিজ মুখে সেক্সের কথা বলছেন। কী রকম সেক্স পছন্দ সেই নিয়ে কথাও বলছেন। ফলে একটা বদল তো এসেইছে। শুধু তাই নয়, মেয়েরী রাতিমতো গবেষণা করে এখন সেক্স টয় কিনছেন।

সেক্স টয়ের ব্যবহারে পিছিয়ে পুরুষেরা

সমীক্ষায় উঠে এসেছে পুরুষদের মধ্যে সেক্স টয় অর্থাৎ ভাইব্রেচর ব্যবহারের প্রবণতা কম। অনেকেই সঙ্গমকালে সেক্সটয় ব্যবহার করেছিলেন। কিন্তু সেক্ষেত্রে চূড়ান্ত সুখ থেকে তাঁরা বঞ্ছিত ছিলেন। এছাড়াও তাঁদের দাবি মেয়েরা সেক্স টয় একদমই পছন্দ করেন না। এবং সঙ্গী যদি সেক্স টয় ব্যবহার করেন সেক্ষেত্রে তাঁর মানসিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এমনকী অনেক সম্পর্কই বিচ্ছেদ হয়েছে।

উভকামীদের মধ্যে ব্যবহার বেশি

যে সব পুরুষ উভকামী তাঁদের মধ্যে বরং সেক্স টয়ের চাহিদা বেশি। সঙ্গীকে যৌনসুখের অনুভূতি দিতেই তাঁরা ভাইব্রেটর ব্যবহার করেন। আবার যাঁদের মধ্যে যৌনক্ষমতা কম, সঙ্গীকে খুশি করতে পারেন না বলে যাঁদের বিশ্বাস, তাঁরাও কিন্তু ব্যবহার করেন বিভিন্ন সেক্স টয়।

সম্পর্ক সুদৃঢ় করতে সেক্স টয় নয়

সম্পর্কে দুজনে খুশি এবং সুখী থাকতে চাইলে সেক্স টয়ের ব্যবহার বন্ধ করতে হবে। এমনটাই মত বিশেষজ্ঞদের। বেশ কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে দীর্ঘদিন ধরে সেক্সটয় ব্যবহার করলে ছেলে এবং মেয়ে উভয়ের মধ্যেই সেক্সচুয়াল আর্জ কমে যায়। তখন কৃত্রিম উপায়ে উত্তেজনা তৈরি করতে ভাইব্রেটর ব্যবহার করতে হয়। এইখান থেকে শুরু হয় মনোমালিন্য। যার প্রভাব পড়ে সম্পর্কে। এমনকী দীর্ঘদিন ব্যবহারে স্বাভাবিক যৌন ক্ষমতা নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

Related posts